Latest news

খাল-বিলে মাছ ধরার বিশেষ ফাঁদ

ফেব্রুয়ারি ২২ ২০২১, ১৯:১১

মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা : আবহমান গ্রাম বাংলার রূপের মধ্যে ভেসাল (ভেয়াল) জাল দিয়ে মাছ শিকারের দৃশ্যটি চিরচেনা। তবে সময়ের পালাবদলে এ ভেসাল জালের মাধ্যমে কুচুরিপানার ভিতরে (চিত খেও) দিয়ে মাছ শিকারের দৃশ্য এখন খুব বেশি চোখে পড়ে না। স্থানীয়ভাবে এটি ‘চিত খেও’ নামে মানুষের কাছে পরিচিত।

বিশেষত, গ্রামের খাল-বিলে এ জাল দিয়ে মাছ শিকারের দৃশ্য চোখে পড়ে। এ জাল ব্যবহারের মাধ্যমে জেলেরা খুব সহজে মাছ শিকার করতে পারেন। এর থলি বেশ বড়। খালের মধ্যে কুচুরিপানার ব্যাসার্ধের ওপর নির্ভর করে ভেসাল (চিত খেও) কত বড় হবে। জাল দিয়ে কচুরিপানাগুলো বেড় দেয়া হলে, আস্তে আস্তে কচুরিপানাগুলো টেনে ওপরে উঠালে মাছকে থলিতে বন্দি করে এবং তখন জেলে দুই হাত দিয়ে জালে ঢুকে পড়া মাছগুলোকে ঝাঁকাতে ঝাঁকাতে নিজের আয়ত্তে নিয়ে আসতে পারেন। মাছ শিকারের দারুণ এ কৌশল বেশি চোখে পড়ে মির্জাগঞ্জ উপজেলার ছোট ছোট বদ্ধ খালগুলোতে। তবে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের খালগুলো পলি পড়ে ভরাট হয়ে যাওয়ার কারণে আগের মতো এভাবে জাল দিয়ে মাছ ধরার সংখ্যা দিন দিন কমে যাচ্ছে।

এ জাল দিয়ে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ধরা হয়। যেমন শৌল-বোয়াল, টাকি, চিংড়ি, টেংরা, লইট্টা, পুঁটি, বাইলা, বাইমসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। খাল-বিলে মাছ ধরার আরো কৌশল থাকলেও এটি একটি স্থায়ী কৌশল। ভেসাল স্থায়ীভাবে নির্মাণ করার জন্য জেলেকে হাজার টাকা বিনিয়োগ করতে হয়। তবে ছোট ছোট খালের পানি শীত মৌসুমে কমে গেলে এ জাল দিয়ে জেলেরা কেবল এ ভেসাল দিয়ে মাছ ধরতে পারেন। অনেক জেলেরা সংসারে মাছের চাহিদা পূরণের পরেও ভেসালে ধরা পড়া মাছ স্থানীয় বাজারে বিক্রি করেন তারা। তবে ছোট মাছ ছাড়াও জেলেরা মাঝে মাঝে বড় বড় মাছও পেয়ে থাকেন ভেসাল পেতে।

উপজেলার চত্রা গ্রামের মাদাবুনিয়া খালে এ জাল দিয়ে মাছ ধরা জেলেরা জানান, এই শীত মৌসুমে খালের পানি কমে গেলে ভেসাল জালের মতো কচুরিপানা আটকিয়ে (চিত খেও) দিয়ে জাল দিয়ে মাছ ধরা খুব সহজ। অবসর সময়ে তারা এ জাল দিয়ে মাছ ধরেন।

 




আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

February 2021
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728

আমাদের ফেসবুক পাতা


এক্সক্লুসিভ আরও

1136 Shares
%d bloggers like this: