করোনার মাঝে দেশে নতুন রোগ, ২৮ দিনেই কিডনি-হৃদযন্ত্র বিকল!

আগস্ট ০৬ ২০২০, ২০:৪০

স্বাস্থ্য ডেস্ক: মহামারি রূপে দেশে দেশে তাণ্ডব চালানো প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সঙ্গে সম্পর্কিত নতুন একটি রোগ মাল্টিসিস্টেম ইনফ্লেমেটরি সিনড্রোম। জ্বর থেকে শুরু হয়ে ৪ সপ্তাহের মধ্যে হৃদযন্ত্র, কিডনিসহ অন্যান্য অর্গান নষ্ট করে দিতে পারে এই রোগ।

ভয়াবহ এই রোগে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত শিশু-কিশোর বয়সীরা। এখন পর্যন্ত দেশে চিকিৎসার আওতায় এসেছে এমন রোগীর সংখ্যা ১৫ জন।

জ্বর, পেটে, ব্যথা ও বমি আর বয়স যদি হয় ১৫ এর মধ্যে তাহলে প্রাথমিক ধারণা হতে পারে মাল্টিসিস্টেম ইনফ্লেমেটরি সিনড্রোম।

এ ব্যাপারে এভারকেয়ার হাসপাতালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন জানান, উচ্চমাত্রায় জ্বর থাকে বাচ্চাদের এবং সেটা ১০১ থেকে ১০৫ ডিগ্রি পর্যন্ত হতে পারে। তিন থেকে পাঁচ দিনেই জ্বরের সাথে সাথেই হতে পারে অথবা ধাপে ধাপে কিছু লক্ষণ থাকে। যেমন; সারা গায়ে লাল লাল দানার মতো অথবা রক্তের মতো দাগ থাকতে পারে। এছাড়া সারা শরীরে লালচে দাগ থাকা। কোভিড-১৯ এর ফলে সারা শরীরে যখন এক ধরনের প্রদাহ হয় তখন এই রোগটি প্রকাশ পায়। তখন হার্ট ফেল হয়, মাংস পেশি দুর্বল, চোখের প্রদাহ (লাল চোখ), গলা ও মুখগহ্বর লাল হয়ে যায়। এছাড়া করোনার প্রভাবে রক্তনালীগুলো ফুলে যায় এবং পাশাপাশি কিডনি আক্রান্ত হয়। এর ফলে কিডনিতে পানি জমে যায়। এমনকি নিউমোনিয়া হতে পারে। এই সময়ে সারা শরীরে প্রদাহ হয়।

এভারকেয়ার হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. নুসরাত ফারুক বলেন, ব্লাড প্রেসার কমে যাওয়া, শকে চলে যাওয়া, হার্টবিট আনস্টেবল হয়ে যাওয়া, হাত পা ঠান্ডা হয়ে যাওয়া, বাচ্চা অজ্ঞান হয়ে যাওয়া ইত্যাদি এই রোগের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

গত ১৫ ও ২৭ মে দুই শিশুর মধ্যে পাওয়া যায় এই রোগ। যাদের একজনের মধ্যে একজনের বয়স ছিল মাত্র দেড়মাস। রোগটি ভয়াবহ হলেও এর চিকিৎসা দেশেই রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এ ক্ষেত্রে করোনার মতোই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চালারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

কাজেই শিশুর শরীরে এরকম লক্ষণ দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন।

 




আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

September 2020
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930  

আমাদের ফেসবুক পাতা


এক্সক্লুসিভ আরও

1216 Shares
%d bloggers like this: