রাজাপুরে বিদ্যালয়ের সম্পত্তি পুনরুদ্ধারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি

জুলাই ৩০ ২০২০, ১৭:৪১

রাজাপুর প্রতিনিধি: “স্কুল বাঁচলে বাঁচবে শিক্ষা” এই শ্লোগানে ঝালকাঠির ঐতিহ্যবাহি রাজাপুর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের বেহাত হওয়া সম্পত্তি পুনরুদ্ধার ও অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিরোধে চলমান আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়েছে।বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শুরু হয়ে বেলা সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত চলে এ অবস্থান কর্মসূচি। বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীবৃন্দের আয়োজনে বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। বিদ্যালয়ে বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের প্রায় দুই শতাধিক মানুষ এতে অংশ নেয়।

আন্দোলন কারীরা আফসার আলী আকন শিক্ষক-ছাত্র মিলনায়তন এর ভাড়া বাতিল করে পুনরায় মিলনায়তনটি চালু করা, বদ্ধভূমি সংলগ্ন বিদ্যালয়ের জমিতে বিদ্যমান লীজ ও অবৈধ হস্তান্তরকৃত স্থাপনা উচ্ছেদ করে সীমানা নির্ধারণ ও বিদ্যালয়ের নাম সম্বলিত সাইনবোর্ড স্থাপন করা, বিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী খেলার মাঠের সংকোচন রোধ ও খেলার সুষ্ঠু পরিবেশ রক্ষার্থে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা, বিগত বছর থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত প্রদানকৃত সকল লীজ বাতিল করে উক্ত সম্পত্তি বিদ্যালয়ের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট কাজে ব্যবহার করা, ঐতিহ্যবাহী বিদ্যালয়টিতে অধ্যয়নরত সহস্রার্ধো শিক্ষার্থীর জন্য আবশ্যক প্যারেড গ্রাউন নিশ্চিত ও দীর্ঘ দিনের আলোচিত গ্রন্থাগার স্থাপন করা সহ ১১ দফা দাবী বাস্তবায়নের জন্য হুশিয়ারি প্রদান করেন।

কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি এ্যাড. এএইচএম খায়রুল আলম সরফরাজ, ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি এ্যাড. বাবু সঞ্জিব কুমার বিশ্বাস, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিলন মাহমুদ বাচ্চু, উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহ্ আলম নান্নু, মুক্তিযোদ্ধা এনায়েত হোসেন খান মিলু, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি আসলাম হোসেন মৃধা, আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ, নাসির উদ্দিন তালুকদার জুয়েল ও স্কুল স্টুডেন্ট কেবিনেটের নির্বাচিত মোঃ মুবিন ও মোঃ হাসিব প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বিদ্যালয়ের বেহাত হওয়া সম্পত্তি বিদ্যালয়কে উদ্ধার করে দিতে আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। বিদ্যালয়ের এক ইঞ্চি জমিও বেদখলে থাকা চলবে না। প্রয়োজনে ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি বাঁচাতে আমরা প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর পর্যন্ত যাবো। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বেহাত হওয়া সম্পত্তি উদ্ধারে যদি অবিলম্বে তৎপর না হয়, তাহলে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে। এ সময় অবস্থান কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক অধ্যক্ষ জাহিদ হোসেন খান, সাবেক প্রধান শিক্ষক গৌরাঙ্গ লাল সাহা, মুক্তিযোদ্ধা জয়রাম তেওয়ারি, মুক্তিযোদ্ধা প্রান বল¬ভ সাহা, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকারিয়া সুমন, দুলাল তেওয়ারি রাজিব ফরাজী সহ প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

 




আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

August 2020
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  

আমাদের ফেসবুক পাতা


এক্সক্লুসিভ আরও

1967 Shares
%d bloggers like this: