আম্ফানের তাণ্ডবে পিরোজপুরে পৌনে ৪শ কোটি টাকার ক্ষতি, ৩ জনের মৃত্যু

মে ২১ ২০২০, ২০:১৪

Spread the love

পিরোজপুর প্রতিনিধি : ঘূর্ণিঝড় আম্ফান সন্ধ্যা থেকে শুরু করে রাতভর বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে তাণ্ডবে সাত হাজার মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়েছে। এতে প্রায় পৌনে ৪০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। জেলার সাতটি উপজেলার অধিকাংশ মৎস্য ঘের ভেসে গেছে। এবং জেলায় আম্ফানের তাণ্ডবে ৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলো।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আব্দুল বারী জানান, জেলার ৩৯ হাজার ১৩৮টি মৎস্য ঘেরের মধ্যে ৬ হাজার ৭৫৫টি প্লাবিত হয়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে এ সংখ্যা প্রায় দেড় গুণ বলে জেলার বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে।

জেলা মৎস্য কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলার সদর উপজেলার ৬৫টি, নাজিরপুরে ৪ হাজার ৪৫০টি, মঠবাড়িয়ার ২৩৫টি, কাউখালীতে ২৮০টি, ভাণ্ডারিয়ায় ৩৫০টি, ইন্দুরকানী ৫২৫টি ও নেছারাবাদ উপজেলায় ৭৫টি মৎস্য ঘের ভেসে গেছে।

তিনি আরও জানান, ক্ষতির সঠিক পরিমাণ এখানো পুরোপুরি নিরূপণ করা সম্ভব হয়নি। তবে প্রায় ৩৭৬ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) ভোররাতে পানিবন্দি হয়ে ইন্দুরকানি উপজেলার ওমেদপুর গ্রামে শাহআলম নামে ৫৫ বছরের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

বিষয়টি জানিয়েছেন ইন্দুরকানি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান।

অপরদিকে মঠবাড়িয়া উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের ডুবতী এলাকায় ঝড়ের সময় আশ্রয় নিতে পাশের বাড়িতে যাওয়ার সময় সিঁড়ি থেকে পড়ে গিয়ে গোলবানু (৭০) নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোলবানু ঝড় শুরু হলে বুধবার (২০ মে) রাত ৯ টার দিকে পাশের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। এসময় সিঁড়ি দিয়ে ওপরে উঠতে গেলে পা পিছলে পড়ে গিয়ে তার মৃত্যু হয়।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম মাসুদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বুধবার (২০ মে) পি‌রোজপুরের মঠবা‌ড়িয়া পৌর এলাকায় নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ ধ‌সে পড়লে শাহজাহান মোল্লা (৬৫) না‌মে এক ফল বি‌ক্রেতার মৃত্যু হ‌য়। সন্ধ্যা ৬টার দি‌কে ঝড়ো হাওয়া বই‌তে শুরু করলে তি‌নি বা‌ড়ির পা‌শের এক‌টি নির্মাণাধীন ভব‌নে গি‌য়ে আশ্রয় নিয়েছিলেন।

 




আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

June 2020
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930  

আমাদের ফেসবুক পাতা


এক্সক্লুসিভ আরও

%d bloggers like this: