প্রতিবন্ধী পরিচ্ছন্নতা কর্মীকে কটুক্তি :এলাকাবাসীর ক্ষোভ

নভেম্বর ০৮ ২০১৯, ১৯:৪০

Spread the love

শামীম আহমেদ  প্রতিবন্ধী এক সরকারী পরিচ্ছন্নতা কর্মীর চেহারা নিয়ে কটুক্তি, অফিস সহায়ককে ভয়ভীতি প্রদান ও পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শিকাকে অন্যত্র বদলীর পাঁয়তারাসহ বিস্তার অভিযোগ উঠেছে মাদারীপুর কালকিনি উপজেলার সাহেবরামপুর উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের উপ-কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌসের বিরুদ্ধে।

সাহেবরামপুর দশ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রে নারী পরিচ্ছন্নতা কর্মী বিজলী খাতুন জানান, পরিচ্ছনতা কর্মী হিসেবে প্রতিবন্ধী কোটায় তার চাকুরী হয়। কয়েক বছর পূর্বে তিনি সাহেবরামপুর দশ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রে যোগদান করেন। একই অফিসে সাহেবরামপুর উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের অফিস হওয়ায় বিভিন্ন অজুহাতে উপ-কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌস তার উপর প্রভাব খাটাতে চেষ্টা করেন। তিনি প্রতিবন্ধী হওয়ায় তার চেহারা ও পদমর্যাদা নিয়ে বিভিন্ন সময় ব্যঙ্গ বিদ্রুপ শুরু করেন। এমনকি এলাকার বখাটেদের ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করতে উৎসাহিত করেন। বিষয়টি কেন্দ্রের পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা সোহানা খাতুনকে জানানোর পর ওই মেডিকেল অফিসার তাকেসহ সোহানা খাতুনকে কেন্দ্র থেকে অন্যত্র বদলীর জন্য পাঁয়তারা শুরু করেছেন।

ওই কেন্দ্রের পিওন/নিরাপত্তা কর্মী আরিফুর রহমান জানান, উপ-কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌস ও তার অফিসের আয়া তাকে (আরিফুর রহমান) বিভিন্ন অজুহাতে দূর্ব্যবহার করেন। এমনকি অফিসের সম্পদ নিজের ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করেন। প্রতিবাদ করলে তাকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। সাহেবরামপুর মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রের ছয় বারের শ্রেষ্ঠ জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা সোহানা খাতুন জানান, দীর্ঘ ৩৬ বছর পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শিকা হিসেবে তিনি সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

কিন্তু একটি স্বার্থান্বেষী মহল তার সুনাম ক্ষুন্ন জন্য ও তাকে অন্যত্র বদলী করার জন্য উঠে পরে লেগেছে। এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। তবে অভিযোগগুলো ভিত্তিহীন বলে দাবী করেছেন উপ-কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌস।

 




আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

May 2020
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031

আমাদের ফেসবুক পাতা


এক্সক্লুসিভ আরও

%d bloggers like this: