বরগুনায় নিম্মমানের ইট দিয়ে চলছে রাস্তা নির্মাণ

নভেম্বর ০৬ ২০১৯, ২০:৩৮

মোঃ আসাদুজ্জামান,বরগুনা: বরগুনা সদর উপজেলার ১ নম্বর বদরখালী ইউনিয়নের কুমড়াখালী থেকে বাওয়ালকর পর্যন্ত সাড়ে তিন কিলোমিটার রাস্তায় নিম্নমানের ইট ব্যবহার করা হচ্ছে। রোববার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে কুমড়াখালী-বাওয়ালকর এলাকার রাস্তায় সরেজমিনে গেলে নিম্মমানের ইট ব্যবহার করার সত্যতা মেলে।

এসময় দেখা যায়, ইট আনার জন্য ব্যবহৃত টাফি (ট্রাক্টর) দিয়ে আরো নিম্মমানের ইট নিয়ে আসা হচ্ছে রাস্তায় দেয়ার জন্য। স্থানীয় বাসিন্দা খবির, আলম, সোলায়মান সহ অনেকে অভিযোগ করে বলেন, কাজের শুরু থেকে অনিয়ম হওয়ায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরকে (এলজিইডি) একাধিকবার অভিযোগ দিয়েও কোনো কাজ হয়নি। এলাকাবাসীর অভিযোগ কর্তৃপক্ষের জোগসাজশেই এ অনিয়ম করা হচ্ছে। তারা আরোও বলেন, রাস্তাটি যে ইট দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে তা কোনো নম্বরের মধ্যেই পড়ে না। বৃষ্টিতে নষ্ট হওয়া এই ইটগুলো ৩ নম্বর এবং চুলার মাটির চেয়েও নরম।

বহুদিনের কাঙ্ক্ষিত রাস্তাটি বেশি কিছু করার কারণে যদি কাজ বন্ধ হয়ে যায় এ কারণে প্রতিবাদ করতেও ভয় পাচ্ছেন এলাকাবাসী। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুমড়াখালী-বাওয়ালকরের সাড়ে তিন কিলোমিটার রাস্তাটি চলতি বছরের টেন্ডারের প্রেক্ষিতে ১ কোটি ৪৭ লাখ ৬১ হাজার ২২৯ টাকা ব্যয়ে পাকাকরণের নির্মাণকাজ পান ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গোলাম সরোয়ার কবির এন্টার প্রাইজ।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গোলাম সরোয়ার কবির এন্টার প্রাইজের প্রধান (কবির) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দৈনিক দ্বীপাঞ্চলকে জানান, এখন কোনো ইটভাটায় নতুন ইট তৈরী হচ্ছেনা। তাই পুরাতন ইট দিয়ে কাজ চালাচ্ছি। জনগণের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাজারে আসেন চা খাবো এক সাথে। বরগুনা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি)’র সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মো. হোসেন আলী মীর জানান, বর্তমানে কোথাও ইট তৈরী হচ্ছেনা। ইট ভাটার মালিক আগের তৈরী খারাপ ইট দিতে পারে। কাজটি পর্যবেক্ষণের দায়িত্বরত এসও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন। যদি খারাপ ইট দিয়ে কাজ করা হয় তাহলে সেগুলোকে অপসারণ করা হবে। তাছাড়া বরগুনার বাশবুনিয়া-কালিরতবক এলাকায় তার আরেকটি কাজ চলছে বলেও জানান তিনি।




আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

নভেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  

আমাদের ফেসবুক পাতা


এক্সক্লুসিভ আরও

%d bloggers like this: