ব্রেকিং নিউজ

উত্তাল শ্রীলঙ্কা: জ্বলল ৩৩ এমপির বাড়ি, নিহত ৮

মে ১১ ২০২২, ১৬:৫৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ‍॥ বিক্ষোভের আগুনে পুড়ছে শ্রীলঙ্কা। দেশজুড়েই ভয়ংকর দৃশ্য চোখে পড়ছে। পুড়ছে বাইক, দোকান, বাড়ি। এখন পর্যন্ত দেশটিতে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অন্তত ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দিবাগত এক রাতে ক্ষমতাসীন দলের ৩৩ সাংসদের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে আছে ক্ষমতাসীন রাজাপাকসে পরিবারের পৈত্রিক বাড়িও।

ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের খবরে বলা হয়েছে, সরকারপক্ষের সমর্থকদের সঙ্গে সরকার বিরোধীদের সংঘর্ষে পরিস্থিতি ক্রমেই আরও ভয়াবহ হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেয়ার পর মাহিন্দা রাজাপাকসে নৌঘাঁটিতে আশ্রয় নিয়েছেন।

সোমবারই পদত্যাগ করেন রাজাপাকসে। এরপরও ক্রমশ বেড়েই চলেছে বিক্ষোভ। কলম্বো ও দেশের অন্য প্রান্তে সংঘর্ষে আড়াইশোর বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি সামলাতে দেশজুড়ে জারি করা হয়েছে কারফিউ, নেমেছে সেনা। তবে তাতেও পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি।

sri lanka

মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকেই গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে যে, রাজাপাকসে ও অন্যান্য রাজনীতিবিদরা প্রাণ বাঁচাতে ভারতে আশ্রয় নিতে পারেন। যদিও শ্রীলঙ্কায় অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস এই গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছে।

জানা গিয়েছে, সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীরা বন্দরনায়েক আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের কাছে চেক পয়েন্ট তৈরি করেছেন। যাতে কোনোভাবেই ক্ষমতাসীনরা দেশ ছেড়ে পালাতে না পারেন।

এদিকে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে শ্রীলঙ্কার সাধারণ মানুষের কাছে ‘প্রতিহিংসা ও প্রতিশোধস্পৃহা’র পথ থেকে সরে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

অর্থনৈতিক সংকটের পড়ার পর থেকে প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করছে সাধারণ মানুষ। গত ৯ মে থেকে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের কার্যালয়ের বাইরে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে বিরোধীরা।

১৯৪৮ সালে যুক্তরাজ্যের কাছ থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার পর সবচেয়ে কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। ৭৪ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সংকট পার করছে দেশটি। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে টান পড়ায় বাইরের দেশ থেকে জ্বালানি তেল আমদানি করতে পারছে না সরকার।

sri lanka

বর্তমানে শ্রীলঙ্কা সরকারের তহবিলে রয়েছে দুই দশমিক ৩১ বিলিয়ন ডলার, যা বিশ্ববাজার থেকে নেওয়া ঋণের তুলনায় অতি নগণ্য। শ্রীলঙ্কার ঋণের মধ্যে আন্তর্জাতিক সার্বভৌম বন্ডে রয়েছে ৩৬ দশমিক ৪ শতাংশ, এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক থেকে নেওয়া ঋণের পরিমাণ ১৪ দশমিক ৬ শতাংশ, এরপরই জাপান- শ্রীলঙ্কাকে দেওয়া তাদের ঋণের পরিমাণ ১০ দশমিক ৯ শতাংশ। আর চীন সরকার দিয়েছে ১০ দশমিক ৮ শতাংশ। আমদানির জন্য বিপুল এই রিজার্ভ ঘাটতি দেশটিতে জ্বালানি, শক্তি, খাদ্য এবং ওষুধের সংকটের জন্ম দিয়েছে।

 




আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

May 2022
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

আমাদের ফেসবুক পাতা


এক্সক্লুসিভ আরও

Shares
%d bloggers like this: